আসুন, কোয়ারেনটাইনকে ‘কোরআন টাইম’ বানিয়ে নেই

আসুন, কোয়ারেনটাইনকে ‘কোরআন টাইম’ বানিয়ে নেই

ড. তুহিন মালিক

বিশ্বজুড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ যখন করোনা মহামারীতে আক্রান্ত। তখন আমরা যারা সুস্থ আছি। নিরাপদে আছি। এটা নিঃসন্দেহে আল্লাহতায়ালার অনেক বড় এক নিয়ামত। সবাই এখন হোম কোয়ারেনটাইনে। এই যে অখন্ড অবসর। এই যে সুস্থতা। এটাও আল্লাহর এক অপার নিয়ামত। অথচ, অনেককেই দেখছি হা হুতাশ করছে। তাদের নাকি সময় কাটে না। বোরিং লাগছে।

রাসূল (সাঃ) বলেছেন- দুটি নিয়ামতের বিষয়ে অনেক মানুষ ধোঁকার মধ্যে রয়েছে- ১. সুস্থতা ২. অবসর (সহীহ বুখারি- ৬৪২২)।

অনেকেই এ দুই নেয়ামত একসঙ্গে পায় না। একদিকে কারো একফোঁটা অবসর নেই। অন্যদিকে কেউ আবার সারাক্ষন অবসরে আছেন সত্য, তবে তিনি হয়ত ভীষন অসুস্থ। তাই, আমরা আজ এ দুটো নেয়ামতকে একসঙ্গে পেয়েও যেন এর সুযোগ থেকে নিজেদেরকে বঞ্চিত না করি।

এতদিন আমরা যারা ব্যাস্ততার কারনে পরিবারকে সময় দিতে পারিনি। বাবা-মাকে জড়িয়ে ধরতে পারিনি। সন্তানকে আদর-ভালোবাসা বা সময় দিতে পারিনি। ভাই-বোন আত্মীয়স্বজনের খোঁজ খবর নিতে পারিনি। নিজে উচ্চ শিক্ষিত হয়েও সন্তানকে কোচিং এর পেছনে ছেড়ে দিয়েছি। ঘরের কাজে কখনও সহায়তা করিনি। বাবা-মা, ভাই-বোন, সন্তানরা একসাথে জামাতে নামাজ পড়ার সুযোগ হয়নি। এই সুস্থতা, এই অবসর, এই নেয়ামতকে আজকে সঠিকভাবে ব্যবহারের সময় চলে এসেছে।

আমরা যারা আল্লাহর কিতাব পবিত্র কোরআন শিক্ষা নেয়ার সময় পাইনি। এই কোয়ারেনটাইন আমাদের জন্য অভাবনীয় এক মহা সুযোগ। আসুন, কোয়ারেনটাইনকে ‘কোরআন টাইম’ বানিয়ে নেই।

nayadigantajobs

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *