রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) দলীয় নেতাকে মারধরের অভিযোগে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকসহ ছয় জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়েছে।

রবিবার (২৬ জানুয়ারি) রাতে মারধরের শিকার অর্নব পিউস বিশ্বাস বাদী হয়ে মতিহার থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা করেন। তবে ঘটনার দুই দিন পার হলেও এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

রুয়েট সূত্রে জানা যায়, মারধরের শিকার অর্নব পিউস বিশ্বাস রুয়েট ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী। তিনি মামলায় ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান (নিবিড়), সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান চৌধুরী (তপু), ইইই বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র রাকিব শাহরিয়ার ও লাশিউর রহমান, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র জাহিদ হাসান, বহিরাগত চন্দনসহ অজ্ঞাতনামা তিন-চারজনকে আসামি করেছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২৪ জানুয়ারি বিকালে রুয়েটে সাধারণ ছাত্রদের নিয়ে র্যা গিংবিরোধী শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। রাত সাড়ে নয়টায় ব্যক্তিগত দ্বন্দ্ব ও প্রভাব বিস্তারের উদ্দেশে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান চৌধুরীসহ পাঁচ-ছয়জন অর্নবের কক্ষে গিয়ে তাকে হল ছাড়ার হুমকি দেন।

শনিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে তারা অর্নবকে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান হলের বাগানে ডেকে নিয়ে আবার হল ছাড়ার হুমকি দেন।

এতে আরও বলা হয়, গত রবিবার দুপুরে সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান জিয়াউর রহমান হলের ৩০৮ নম্বর নিজ কক্ষে অর্নবকে ডেকে নিয়ে যান।

সেখানে পৌঁছামাত্র অন্যতম পরিকল্পনাকারী সভাপতি নাঈম রহমানের হুকুমে মাহফুজুর রহমান, চন্দন, লাশিউর ও জাহিদ জিআই পাইপ দিয়ে অর্নবকে মারধর করেন।

এতে অচেতন হয়ে পড়লে অর্নবের দুই সহপাঠী তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করেন।

insaf24

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *