লিবিয়ার যু’দ্ধবাজ হাফতার বেতনভোগী ভাড়াটে সৈনিক: এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মধ্যে লিবিয়ার যু’দ্ধবাজ খলিফা হাফতারের কোনও সরকারী স্বীকৃতি নেই। সে একজন বেতনভোগী ভাড়াটে সৈনিক।

মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) ম্যাকি সলের সাথে সেনেগালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এরদোগান বলেন, ১৯৯০-এর দশকে তৎকালীন নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফির সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করার পর হাফতার আমেরিকায় আশ্রয় নিয়েছিলো।

তিনি আরও বলেন, লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী ফয়েজ আল সররাজ জাতিসংঘ-স্বীকৃত, জাতীয় সরকার কর্তৃক অনুমোদিত ও জাতিসংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলের দ্বারা স্বীকৃত। অতএব যুদ্ধবাজ হাফতারের সাথে তাদের দলবদ্ধ করা উচিত নয়।

এরদোগান বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিশরের আর্থিক সহায়তায় হাফতার সামরিক পদক্ষেপ নিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সামরিক বাহিনীর পরিবর্তে যদি রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার লিবিয়ার সঙ্কট অগ্রসর হয় তাহলে দেশটির নাগরিকরা ভালো ভবিষ্যৎ দেখতে পারবে।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে প্রয়াত শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকে লিবিয়ায় দুটি শক্তির উত্থান ঘটে।

একটি হচ্ছে মূলত মিশর ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সমর্থিত পূর্ব লিবিয়ার হাফতার এবং অন্যটি হচ্ছে ত্রিপোলিতে জাতীয় চুক্তি (জিএনএ) সরকার, যা জাতিসংঘ এবং আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত।

উৎস: আনাদুলো এজেন্সী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *