শ্রীলঙ্কার নাগরিককে পিটিয়ে হত্যা ‘পাকিস্তানের জন্য লজ্জার দিন’: ইমরান খান

পাকিস্তানে ধর্মানুভুতিতে আঘাতের অভিযোগে শ্রীলঙ্কার এক নাগরিককে হত্যার পর পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনাকে ‘পাকিস্তানের জন্য লজ্জার দিন’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

পাঞ্জাব পুলিশের মুখপাত্র ওসামা মেহমুদের বরাত দিয়ে সিএনএন আজ শনিবার জানায়, পাঞ্জাব প্রদেশে কর্মরত একজন শ্রীলঙ্কার নাগরিককে ধর্মানুভুতিতে আঘাতের অভিযোগে গণপিটুনিতে হত্যা এবং মরদেহ পুড়িয়ে দেওয়ার পর ইমরান খানের এমন মন্তব্য এলো।

গতকাল পাঞ্জাবের শিয়ালকোট শহরে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনাকে ‘ভয়াবহ সতর্কীকরণ আক্রমণ’ হিসেবে অভিহিত করেছেন ইমরান খান। এ ছাড়াও, তিনি পুরো ঘটনা তদন্তের তত্ত্বাবধান করছেন বলেও জানান।

শুক্রবার এক টুইটবার্তায় ইমরান খান বলেন, ‘কোনো ভুল যেন না হয়। যারা দায়ী তাদের কঠোর আইনে শাস্তি দেওয়া হবে। গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে।’

শিয়ালকোট পুলিশের মুখপাত্র খুররাম শেহজাদ বলেন, ‘প্রান্ত কুমার নামে নিহত ব্যক্তি বৌদ্ধ কারখানার একজন ম্যানেজার ছিলেন।’

উন্মত্ত জনতার কাছ থেকে প্রান্ত কুমারের দেহাবশেষ উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশন এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ‘যে বর্বরতার সঙ্গে শিয়ালকোটের জনতা ধর্মানুভুতিতে আঘাতের অভিযোগ তুলে একজন শ্রীলঙ্কান নাগরিককে নির্মমভাবে হত্যা করেছেন, তা পাকিস্তানের উগ্রপন্থী ভয়াবহ বাস্তবতাকে তুলে ধরে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *