নারীরা কোনো পণ্য নয়, তাদের সম্মতি ব্যতীত বিয়ে হবে না : তালেবান

আফগানিস্তানের তালেবান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নারীদেরকে পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না।

কোনো নারীর সম্মতি ব্যতীত বিয়ে বৈধ হবে না। শুক্রবার নারী অধিকারের বিষয়ে তালেবান কর্তৃপক্ষ এমন আইন জারি করেছে।

তালেবান কর্তৃপক্ষ কর্তৃক জারিকৃত আইনে নারীদের বিয়ে ও সম্পদের বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

এ আইনে প্রত্যেক নারীকে সম্পদের অধিকার দেয়া হয়েছে। এছাড়া বলা হয়েছে যে নারীদের পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না এবং বিয়ের সময় তাদের সম্মতি নেয়া বাধ্যতামূলক।

নারী অধিকারের বিষয়ে তালেবান কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুহাজিদ বলেন, নারীকে পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না। মূলত নারীরা হলেন মহান ও স্বাধীন সত্তা।

আফগান সমাজে শান্তি রক্ষা এবং শত্রুতা নিরসনে কোনো নারীকে জোর করে বিয়ে দেয়া যাবে না। কোনো নারীর সম্মতি ব্যতীত বিয়ে বৈধ হবে না।

নারীরা সম্পদের অধিকার পাবে। এমনকি বিধবারা তাদের মৃত স্বামীর সম্পদে একটি নির্দিষ্ট অংশ পাবে।

তালেবান কর্তৃপক্ষ কর্তৃক জারিকৃত এ আইনে আরো বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের প্রত্যেক আদালতে সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় তালেবান কর্তৃপক্ষ কর্তৃক জারিকৃত এ আইন অনুসরণ করতে হবে।

আফগানিস্তানের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও তথ্য মন্ত্রণালয়কে এ জারিকৃত আইন প্রচার করতে হবে।

সূত্র : রয়টার্স

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *