খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার মূল বাধা সরকার : রিজভী

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘দেশের কোনো আইনেই সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার জন্য বাধা নেই। এই আইনের বাধা একটাই সেটা হলো সরকার।’

আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (অ্যাব) উদ্যোগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে রিজভী এসব কথা বলেন।

বিএনপিনেতা বলেন, ‘দেশের গণমাধ্যম বলছে, খালেদা জিয়ার থেমে থেমে রক্তক্ষরণ হচ্ছে।

আর সরকার বলছে, দেশের ভেতরে চিকিৎসা সম্ভব। তারা কিছুই মনে করেন না।

তারা যেটাই বলবে সেটাই বিশ্বাস করতে হবে? তাহলে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা কেন সিঙ্গাপুরে হলো? কেন বিমান চার্টার্ড করা হলো? কেন দেশের চিকিৎসকরা তাঁকে সারিয়ে তুলতে পারেননি? কেন সেদিন বলেননি যে, কাদেরের চিকিৎসা বাংলাদেশেই হবে? এই ধরনের দ্বিচারিতা ও স্বৈরাচারী ফ্যাসিস্ট মনোভাবের জন্য সরকারকে একদিন জবাব দিতে হবে।’

প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান চুন্নুর পরিচালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন অ্যাবের সেক্রেটারি প্রকৌশলী আলমগীর হাসিন আহমেদ, বিএনপির গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক সেলিম ভুঁইয়া, বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী, সেক্রেটারি শহীদুল ইসলাম, প্রকৌশলী আব্দুল হালিম পাটোয়ারী, প্রকৌশলী মিয়া মো. কাইয়ুম, প্রকৌশলী মাহবুব আলম, রিয়াজ উদ্দিন ভুঁইয়া, প্রকৌশলী আসিফ হোসেন রচি, জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক জোটের রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন প্রকৌশলী মুহিত রুমি, হেলাল উদ্দিন তালুকদার, কামরুল হাসান সাইফুল, শফিউল আলম তালুকদার সবুজ প্রমুখ।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘পাকিস্তান, মালদ্বীপসহ অনেক দেশকেই আমেরিকা তাদের গণতন্ত্র সম্মেলনে ডেকেছে। কিন্তু বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

কারণ একটাই, এই সরকারের গণতন্ত্র প্লাস্টিকের গণতন্ত্র, কচু পাতার উপরে যে পানি থাকে সেই পানির মতো গণতন্ত্র। কচু পাতার মতো ডলা দিলেই পানি পড়ে যাবে।’

বিএনপিনেতা আরও বলেন, ‘আইনমন্ত্রী সব নিয়ম-কানুন, বিধি ও সংবিধান লঙ্ঘন করে মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন।

আজকে দেশের প্রকৌশলী, আইনজীবী, সাংবাদিক, শিল্পী, চিকিৎসক, শিক্ষক সবাই দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ঐক্যবদ্ধ।

তারা সবাই রাস্তায় নেমেছেন সরকারের অবৈধ ও অন্যায় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে। সবাইকে আরও বেশি ঐক্যবদ্ধ হতে পারে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *