ভারতে কনস্টেবল পদে হিজাব পরা ছবি দেয়ায় আবেদনপত্র বাতিল

এবার সাম্প্রদায়িকতা ঢুকে পড়ল চাকরিতেও। হিজাব পরে মহিলা কনস্টেবল পদে চাকরির আবেদন করায় আবেদনপত্র বাতিল করা হলো ভারতীয় এক নারীর।

আর এই অভিযোগে কলকাতা হাই কোর্টে মামলা দায়েরও করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদনে জানা যায়, ২০২০ সালে কনস্টেবল পদে প্রায় সাড়ে আট হাজার নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়। যার মধ্যে মহিলা কনস্টেবলের শূন্যপদ ছিল ১,১৯২ জন৷

অভিযোগ, ওই পদে নিয়োগের জন্য আবেদনপত্রের সাথে যারা হিজাব পরা ছবি দিয়েছিলেন, তাদের সকলের আবেদনপত্র বাতিল করে দেয়া হয়।

তাকে কেন্দ্র গত ২৪ সেপ্টেম্বর হাই কোর্টে মামলা করেন সোনামণি খাতুন, হাফিজা খাতুনসহ আরও বেশ কয়েকজন চাকরিপ্রার্থী৷

মামলা দায়েরের দু’দিন পর অর্থাৎ, ২৬ সেপ্টেম্বর লিখিত পরীক্ষা হয়৷

মামলার শুনানিতে রাজ্যের তরফে এক আইনজীবী বলেন, পুলিশ একটা ডিসিপ্লিনড ফোর্স৷ আইনে বলা আছে মাথা ঢাকা কোনও ছবি দেয়া যাবে না।

তাই আবেদনকারীদের অনলাইন আবেদন গ্রহণ করা হয়নি। মামলাকারীদের আইনজীবী পালটা দাবি করে বলেন, এটা একটি ধর্মীয় রীতি৷

এর ভিত্তিতে কাউকে চাকরির পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা থেকে বঞ্চিত করা যায় না।

উভয় পক্ষের বক্তব্য শোনার পর বিচারপতি অরিন্দম মুখোপাধ্যায় বলেন, মামলার ভবিষ্যৎ কী, তার ওপর কনস্টেবল পদে নিয়োগ প্রক্রিয়ার ভবিষ্যৎ নির্ভর করবে৷

আগামী ৬ ডিসেম্বর মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছে আদালত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *