ইরানের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধে চেষ্টা চালিয়ে যাবে ওয়াশিংটন: যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেছেন, ইরানের কাছে কোনো দেশ যেন সমরাস্ত্র বিক্রি না করে সে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে আমেরিকা।

জাতিসংঘের মাধ্যমে ইরানের ওপর আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের যে আবেদন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করেছিলেন তা প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেয়ার পরদিন ওয়াশিংটন একথা জানাল।

নেড প্রাইস বলেন, ইরানকে যেন কোনো দেশ কোনো ধরনের অস্ত্রসস্ত্র সরবরাহ না করে সে চেষ্টা চালিয়ে যাবে ওয়াশিংটন। তিনি এমন সময় এ বক্তব্য দিলেন যখন ২০১৫ সালে ছয় বিশ্বশক্তির সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতার ভিত্তিতে ২০২০ সালের ১৮ অক্টোবর তেহরানের ওপর থেকে আন্তর্জাতিক অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা স্বয়ংক্রিয়ভাবে উঠে গেছে।

এদিকে, আমেরিকার সাবেক ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন গত বছর আগস্ট মাসে জাতিসংঘের মাধ্যমে ইরানের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা নবায়ন করতে না পেরে স্ন্যাপব্যাক ম্যাকানিজম চালু করার ঘোষণা দিয়েছিল। তবে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অন্য কোনো সদস্য দেশ এই ম্যাকানিজম চালুর পক্ষে ছিল না।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এই নয়া মুখপাত্র শনিবার এ সম্পর্কে বলেছেন, স্ন্যাপব্যাক প্রত্যাহার করার মাধ্যমে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বাকি সদস্যদেশগুলোর সঙ্গে ইরানের ব্যাপারে নিজের দৃষ্টিভঙ্গিকে কাছাকাছি নিয়ে আসার চেষ্টা করছে ওয়াশিংটন।

স্ন্যাপব্যাক ম্যাকানিজম অনুযায়ী পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী ইরান ছাড়া অন্য যেকোনো দেশ যদি মনে করে তেহরান এটি মেনে চলছে না তাহলে ওই দেশ জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব উত্থাপন করলেই ইরানের ওপর জাতিসঙ্ঘের সবগুলো নিষেধাজ্ঞা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পুনর্বহাল হবে। ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করে এটিকে আটকানো যাবে না। পরমাণু সমঝোতার মাধ্যমে ওই নিষেধাজ্ঞা স্থগিত রয়েছে।

সূত্র: পার্সটুডে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *