দেশে পৃথক আলিয়া-কওমী-নূরানি মাদরাসার কোন প্রয়োজন নেই: শাহরিয়ার কবির

দেশে পৃথক পৃথক আলিয়া-কওমি-নূরানি মাদরাসা শিক্ষাব্যবস্থার কোনো প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির।

তিনি বলেন, দেশে পৃথক পৃথক আলিয়া-কওমি-নূরানি মাদরাসা শিক্ষাব্যবস্থার কোনো প্রয়োজন নেই। সব মাদরাসায় একই পাঠ্যসূচি প্রচলন করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস-চেতনা, বঙ্গবন্ধুর জীবনী, বাংলাদেশের সংবিধান, বাঙালির ইতিহাস-ঐতিহ্য পাঠ, জাতীয় সংগীত গাওয়া এবং জাতীয় পতাকা উত্তোলন সকল মাদরাসায় বাধ্যতামূলক করতে হবে।

সোমবার (৩ মে) ‘সকল কওমী মাদরাসা সরকারের প্রত্যক্ষ নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে’- প্রতিপাদ্যে আয়োজিত একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির এক ওয়েবিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

শাহরিয়ার কবির দাবি করে বলেন, জামায়াত-হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশকে আফগানিস্তান বা পাকিস্তানের মতো ‘জঙ্গি-মৌলবাদী-সন্ত্রাসী’ রাষ্ট্র বানানোর জন্য কওমী মাদরাসার ছাত্রদের ‘ব্যবহার করছে।

তিনি বলেন, ২৫ হাজারের বেশি কওমি মাদরাসায় ৩০ লক্ষাধিক ছাত্র-শিক্ষককে আমরা জামায়াত-হেফাজতের ‘সন্ত্রাসী’ রাজনীতিক অভিলাষ পূরণের জন্য তাদের কাছে জিম্মি রাখতে পারি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *