কোরআনে হাফেজকে কুপিয়ে হত্যা

নড়াইলের কালিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুর্বৃত্তরা ১ জন কোরআনের হাফেজকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। নিহতের নাম হাফেজ আলামিন শেখ। তিনি কালিয়া উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের আবুল শেখের ছেলে।

নড়াইলের কালিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হাফেজ আলামিন শেখ নামের এক কুরআনের হাফেজকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তিনি কালিয়া উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের আবুল শেখের ছেলে।

সূত্রে জানা যায়, নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের রেজাউল বিশ্বাস ও মাহবুবুর রহমান কালুর মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গত বুধবার বিকালে মীমাংসার জন্য শালিসি বৈঠক চলাকালে মাহবুবুর গ্রুপের লোকজন রেজাউল গ্রুপের হাফেজ আলামিনের ওপর চড়াও হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হাফেজ আলামিনকে মারাত্মক জখম করে।

তখন এলাকাবাসী আহত আলামিন কে উদ্ধার করে প্রথমে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে তার অবস্থা আশংকাজনক হলে তাকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করার পর শনিবার বেলা ১২টার দিকে তার মৃতু হয়।

কালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)কনি মিয়া নিহতের ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে ও অপরাধিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *